নদীর ধারে মাছ ধরতে গিয়ে চরম বিপদে পরলেন যুবক! ঝড়ের বেগে ভাইরাল হল ভিডিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- গ্রামেগঞ্জে বা শহরতলীর বিভিন্ন অঞ্চলগুলিতে যেখানে নদী নালা বা জলাশয় এর পরিমাণ বেশি সেখানে এই ধরনের চিত্র ফুটে উঠতে দেখা যায় । এবং এই চিত্র অন্যান্য বাকি সকল থেকে আলাদা সেটা আপনারা ইতিমধ্যে উপলব্ধি করতে পেরেছেন । আপনাদেরকে তো বলাই হয়নি আমি কোন চিত্রের কথা বলতে চলেছি । তাহলে বলে রাখি আপনাদেরকে আমি এই মুহূর্তে মাছ ধরার যে একটি গ্রাম্য পরিবেশের চিত্র ফুটে ওঠে প্রতিনিয়ত আমাদের আশেপাশে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে যে চিত্র কথা বলতে চলেছি।

দেখুন পশ্চিমবঙ্গে অধিকাংশ বাঙ্গালীদের বসবাস । এবং বাঙালি মানেই মাছ ভাতের একটা গভীর সম্পর্ক থাকবে এমনটা আমরা প্রত্যেকে জানি । তাই পশ্চিমবঙ্গ এবং তার আশেপাশে অঞ্চলগুলিতে মাছের মাছের চাহিদা বেশি থাকবে এমনটা আগে থেকে অনুমান করা যায় । তাই মাঝেমধ্যেই আমাদের আশেপাশে থাকা বিভিন্ন গ্রাম গঞ্জের এলাকাতে মাছ ধরার এক অভিনব পদ্ধতি চিত্র ফুটে ওঠে। সম্প্রতি ফুটে উঠল আর একবার ।

তার পাশাপাশি আপনাদেরকে মনটা জানিয়ে রাখি যে মাঝেমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে আমরা বিভিন্ন ধরনের বিভিন্ন পদ্ধতিতে মাছ ধরার ভিডিও দেখে থাকব । এবং এই ভিডিওগুলি এতটাই জনপ্রিয় হয়ে উঠে মাঝেমধ্যে যে মানুষটা দেখে রীতিমত মন্ত্রমুগ্ধ হয়ে ওঠেন ।ঠিক তেমনি আজকে একটি ঘটনা কথা বলতে চলেছে আপনাদের সামনে ।।যা দেখলে আপনারা রীতিমত অবাক হয়ে যাবেন কারণ অভিনব পদ্ধতিতে মাছ ধরার চেষ্টা করেছে গ্রামের এই দুই যুবক ।

যে ভিডিওটি সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে সেখানে দেখা যাচ্ছে গ্রামের দুই যুবক দুইটি ছাল ছাড়ানো মুরগি নিয়ে নদীর উদ্দেশ্যে রওনা হয় এবং সেগুলোর মধ্যে সে মুরগিগুলোকে টোপ হিসেবে জলের মধ্যে ডুবিয়ে রাখে । হঠাৎ করে কিছুক্ষণ পর সেখানে টান অনুভব হয় এবং এই টান এতটাই তীব্র ছিল যে কোন রকম ভাবে সেটিকে টেনে নদীর পাড়ে তোলা যাচ্ছিল না ।

যখন কোন রকম ভাবে চেষ্টাচরিত্র করার পর সেই শি-কল নদীর পাড়ে তোলা গেল তখন তারা দেখল যে আ-টকা পড়েছে অন্তত ৩০ কিলো ওজনের একটি দৈত্য আকৃতির মাছ । ঘটনাটি ক্যামেরাবন্দি করা পর সরাসরি ইউটিউবে প্রকাশ করা হয়েছে ।আর তারপর গোটা সোশাল মিডিয়ায় প্রচার শুরু হয়েছে ।অর্থাৎ ব্যাপক পরিমাণে ভাইরাল হয়েছে সেটি ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button