একদম দোকানের মতো বাড়িতেই এই দারুণ কায়দায় বানিয়ে ফেলুন ‘পিজ্জা’, রইল পদ্ধতি!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- বাড়িতে একা হোক কিংবা বন্ধুবান্ধবের সাথে কোথাও ঘুরতে যাওয়া হোক যে খাবারটি আমরা মূলত প্রথমে অর্ডার দিয়ে থাকি সেটি হল পিজ্জা । এখনকার প্রজন্ম ছোট ছোট বাচ্চা ছেলে মেয়ে থেকে শুরু করে আমাদের আগের প্রজন্মের বাবা-মাও কিন্তু পিৎজা খেতে যথেষ্ট পরিমাণ বেশি ভালোবাসেন কিন্তু যে প্রশ্নটা বারবার ঘুরেফিরে আসে সেটি হল যদি আমরা বাড়িতে বানাতে চাই তাহলে কিভাবে বানাবো। কারণ সঠিক উপায়ে এতদিনে কেউ জানায়নি । জা নাবো আমরা শুধুমাত্র আজকের এই প্রতিবেদনে।

পিজ্জা বানাতে গেলে খুব বেশি সময়ের প্রয়োজন হবে না। এবং খুব অল্প সময়ের মধ্যে আপনি বানিয়ে দিতে পারবেন । প্রথমে আপনাকে একটি বাটিতে কিছুটা পরিমাণ ময়দা নিতে হবে ।এবং তার মধ্যে দিতে হবে এক চামচ ন্যূন এক চামচ বেকিং সোডা এবং এক চামচ বেকিং পাউডার এবং এক চামচ আগে থেকে ফেটিয়ে রাখার টক দই যেহেতু বেকিং পাউডার দিয়ে টক দই দেওয়াটা জরুরি ।তারপর এক চামচ সাদা তেল দিয়ে হাতের সাহায্যে ভালো করে সে ময়দা থেকে মেখে নিতে হবে ।

তারপর তার মধ্যে দিতে হবে অল্প পরিমাণ করে কাঁচা দুধ ।অর্থাৎ কাঁচা দুধ দিয়ে ময়দার মিশ্রণ থেকে ভালো করে মাখতে হবে । এবং সেটিকে বায়ুশূন্য করে রেখে দিতে হবে প্রায় আড়াই ঘন্টার মতন । আড়াই ঘন্টা পর সেই ময়দার ডো থেকে বড় বড় কয়েকটি লেচি কেটে নিতে হবে আপনাদেরকে । এবং সেগুলিকে রুটির আকারের বেলে নিতে হবে ।মাথায় রাখবেন বেশি পাতলা যেন না হয় । এরপর আপনাকে একটি ননস্টিক কড়াই নিতে হবে । মাথায় রাখবেন যাতে কড়াই এর গভীরতা একটু বেশি হয় ।

সেই ননস্টিক কড়াই এর মধ্যে দিতে হবে সেই লেচি এবং কিনারা বরাবর ছড়িয়ে দিতে হবে । তারপর তার মধ্যে যোগ করে দিতে হবে পিজ্জা সশ । এটি আপনি যে কোন দোকানে কিনতে পাবেন । তারপর তার মধ্যে দিতে হবে ক্যাপসিকাম কুচি । তারপর তার মধ্যে দিতে হবে চিজ এবং তার মধ্যে দিতে হবে জাইযাই ফল বা আরও বিভিন্ন ধরনের যে সমস্ত সবজি রয়েছে ।আপনি সেটি আপনার ইচ্ছামত দিতে পারেন । এরপর সেই কড়াই ঢাকনা লাগিয়ে প্রায় ১০-১৩ মিনিট হাই ফ্লিম সেদ্ধ হতে দিতে হবে । ১০-১২ মিনিট পর দেখবেন তৈরি হয়েছে সুস্বাদু দোকানে মতন পিজ্জা ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button