দুর্দান্ত কন্ঠে পুরনো দিনের বাংলা গান গেয়ে সকলকে চমকে দিলেন রানু মন্ডল! মুহূর্তে ভাইরাল হল ভিডিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- রানু মন্ডল হচ্ছে বর্তমানে সবথেকে চর্চিত একটি নাম তার উত্থান যেভাবে ঘটেছিল সেটি রীতিমত অবাক করে তুলেছিল গোটা ভারতবর্ষের নাগরিকদেরকে রানাঘাট স্টেশন চত্বরে গান গাওয়া রানু মন্ডল এ হঠাত করে প্লেব্যাক সিঙ্গার হয়ে যাওয়ার ঘটনাকে অনেকেই অনুপ্রেরণার কারণ হিসেবে তুলে ধরেছেন বারবার ।কিন্তু ঠিক যতটা তাড়াতাড়ি তিনি জনপ্রিয়তা লাভ করতে পেরেছিলেন ততটাই তাড়াতাড়ি ভেঙে পড়েছিল তার পরিচিতির রাজমহল।

এবং মূলত নিজের শরীর এ বিপুল পরিমাণ অহংকার জন্যে যাওয়ার কারণে এই ঘটনার সাক্ষী থাকতে হয়েছে তাকে। রানাঘাট স্টেশন চত্বরে এক পেয়ার কা নাগমা হে গানটি গাওয়ার পর অতীন্দ্র নামক এক পথযাত্রী সেখান থেকে ছোট্ট স্মার্টফোনে রেকর্ড করার পর সোশ্যাল মিডিয়াতে প্রকাশিত করেন। ব্যাস তারপর এই ঝড়ের গতিতে ভাইরাল হয়ে যায় সেই গানটি। কিন্তু পরবর্তী ক্ষেত্রে দেখা যায় সেই রানু মন্ডল ভগবানের চাকর হিসেবে আখ্যা দেন।

যার ফলে সাধারণ মানুষেরা ক্রমশ মুখ ফিরিয়ে নিতে শুরু করে রানু মন্ডল এর থেকে লকডাউন এর সময় কোন রকম হাতের কাজ না থাকার দরুন ফিরে যেতে হয়েছিল তাকে সে ভাঙাচোরা বাড়িতেই। এখন প্লেব্যাকের কোন রকম অফার না থাকলেও বাড়িতে মাঝেমধ্যে নিজের মতন করে গান গাইতে দেখা যায় রানু মন্ডল কে। বেশকিছু ইউটিউবার মাঝেমধ্যে তার বাড়িতে আসে আড্ডা মারতে তার সাথে। জমিয়ে আড্ডা মারে গল্প করে। সম্প্রতি তেমনই একটি ভিডিও প্রকাশিত হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়াতে যা পুনরায় তাকে তুলে এনেছে খবরের শিরোনামে।

যেখানে তাকে খালি গলায় “পৃথিবী বদলে গেছে” গানটির হিন্দি ভার্সন কিশোর কুমারের গাওয়া “Raahi Naye Naye Rasta” গানটি নিজের মতো করে গাইছেন।একেবারে সাদামাটা বাড়ির পোশাক নাইটি পরেই তাকে গান গাইতে দেখা যাচ্ছে। যেই গানেটিই বর্তমানে ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। ভিডিওটির ক্যাপশনে পেজটি থেকে লেখা হয়েছে “আপনি এনাকে ঘৃণা করতে পারেন কিন্তু ইনার ভয়েসকে ঘৃণা করতে পারেন না।” যদিও খুব একটা ভুল কথা লেখা হয়নি ক্যাপশনে সে কথা স্বীকার করেছেন অনেকেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button